অজানার উদ্দেশ্যে নির্ভুল অভিযাত্রা নিউজিল্যান্ডের ব্রোঞ্জ কোকিল || Page-99

  অজানার উদ্দেশ্যে নির্ভুল অভিযাত্রা নিউজিল্যান্ডের ব্রোঞ্জ কোকিল 

অজানার উদ্দেশ্যে নির্ভুল অভিযাত্রা নিউজিল্যান্ডের ব্রোঞ্জ কোকিল


 নিউজিল্যান্ডের ব্রোঞ্জ কোকিল ডিম পাড়ার পর বহু দূর দেশে চলে যায় আসন্ন ঋতুর খাদ্যাভাব থেকে বাঁচতে। ডিম থেকে বাচ্চা হবার পর যখন ঐ কোকিলেরা ওড়ার মত যথেষ্ট শক্তিশালী হয়, তখন তারা এক দুর অভিযাত্রার প্রস্তুতি নেয়। কিন্তু তারা তাদের বাবা-মাদের দেখেনি, এবং কোন বয়স্ক পাখীকেও তারা গাইড হিসাবে পায় না, কেননা নিউজিল্যান্ড থেকে অন্য কোন প্রজাতির পাখী সেই দরদেশে পাড়ি দেয় না,  যেখানে তারা যাচ্ছে।



ব্রোঞ্জ কোকিলের বাচ্চাগুলি দুর অভিযাত্রার পক্ষে যথেষ্ট শক্তপােক্ত হয়ে উঠলে এক সুন্দর সকালে তারা ৬০০০ কিলােমিটারের লম্বা সফর শুরু করে। প্রশান্ত মহাসাগর বরাবর তারা পশ্চিম দিকে দলবদ্ধভাবে উড়তে থাকে ঠিক যেদিকে তাদের অদেখা বাবা-মায়েরা গিয়েছিল। কিভাবে সম্ভব?


 প্রশান্ত মহাসাগর এক অবিশ্বাস্য রকমের বিশাল এক মহাসাগর। এরপর প্রায় ২০০০ কিলােমিটার খােলা সমুদ্রের উপর দিয়ে উড়ে তারা উত্তর অস্ট্রেলিয়ায় পৌছায়, সেখান থেকে তারা উত্তরে ঘােরে, সমুদ্রের ধার পর্যন্ত উড়ে যায়, তারপর যাত্রা করে পাপিয়া নিউ গিনির দিকে।


 তারপর সেখান থেকে এক লম্বা দূরত্ব পাড়ি দিয়ে বিসমার্ক দ্বীপপুঞ্জে, যেখানে তাদের পিতামাতারা গিয়েছিল। তারা কিভাবে জেনেছিল যে ঠিক এইখানেই শেষ হয়েছিল তাদের পিতা-মাতাদের অভিযান? এটি আনসম্ভড় মিস্ট্রি  অফ  নেচার’ হিসাবে রয়ে গিয়েছে।

Click Here >>>Subscribe






Comments

Email Subscription

Enter your email address:

Delivered by FeedBurner