Follow

কৃষ্ণভাবনামৃত ঃ পৃথিবীর সমস্ত সমস্যার সমাধান সূত্র । Page-142

  কৃষ্ণভাবনামৃত ঃ পৃথিবীর সমস্ত সমস্যার সমাধান সূত্র ।

অজ্ঞানতায় আচ্ছন্ন মরণশীল মানুষের উদ্ভাবিত মতবাদগুলি যত জ্ঞানগম্ভীর ও রমণীয় মনে হােক, তা ব্যর্থ হতে বাধ্য, কেননা একটি সমস্যা নিবৃত্ত করতে গিয়ে সেটি আরও সমস্যা তৈরী করে। যেমন আধুনিক মানুষের জীবন ক্রমশঃই জটিল হয়ে পড়ছে, সহজ ও স্বচ্ছন্দভাবে কেউই বাঁচতে পারছে না;অন্যদিকে গণনিধনের জন্য মারণাস্ত্রের প্রতিযােগিতা অব্যাহত, যেখানে বিশ্বের কোটি কোটি শিশু ক্ষুধা-অপুষ্টির শিকার।


ভগবান শ্রীকৃষ্ণ ভগবদগীতায় যে সমাধান-সূত্র দিয়েছেন, এবং শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভু তার যে ব্যবহারিক প্রয়ােগ দেখিয়েছেন, তার সাহায্যে যে কোন ব্যক্তি লাভ করতে পারে জীবনে পরম সার্থকতা, সর্বোচ্চ আনন্দ, জ্ঞান, পবিত্রতা ; তেমনি সামাজিক, রাজনৈতিক, পরিবেশগত, নৈতিক, সাংস্কৃতিক সকল সমস্যার নিরসন হতে পারে। 

এজন্য বিশ্বের সবচেয়ে মননশীল চিন্তাবিদেরা ভগবদগীতার প্রতি আকৃষ্ট হয়েছেন। ভগবদগীতার নানা মনগড়া ভাষ্য বিশ্বের - মানুষকে বিভ্রান্ত করেছে, কিন্তু এখন ভগবদগীতা অ্যাজ ইট ইজ বা যথাযথর মাধ্যমে সঠিকভাবে শ্রীকৃষ্ণের বাণী উপস্থাপিত হওয়ায় সারা বিশ্বে ভগবদ্গীতা ক্রমশঃ সমাদৃত হচ্ছে। 

এমন আশা দুরাশা নয় যে অদূর ভবিষ্যতে নীতি-রচয়িতারা (Policy Makers) তাঁদের শিক্ষানীতি, রাষ্ট্রনীতি, সমাজনীতি ইত্যাদি তৈরীর ক্ষেত্রে ভগবদ্গীতার জ্ঞানের সহায়তা গ্রহণ করবেন। সভ্যতার উদ্দেশ্যই হচ্ছে প্রতিটি মানুষকে ভগবমুখী, ভগবৎচেতনাময় করা ।

 ধর্মনিরপেক্ষতার নামে জড়বাদ, নাস্তিকতা, আর ভগবৎবিমুখতার দিন এক সময় শেষ হতে বাধ্য, কেননা এর ফলে অধর্ম, অপসংস্কৃতি ও দুর্নীতি, স্বার্থের সংঘাত ও যুদ্ধের সম্ভাবনা বাড়তেই থাকে, কোন ইজমের দোহাই দিয়ে তা চেপে রাখা যায়না।

 শাশ্বত সত্য, শাশ্বত জ্ঞান কৃষ্ণভাবনামৃত দর্শন বিশ্বসভ্যতাকে সংকটমুক্ত করতে পারে, যথার্থ দিকনির্দেশ দিতে পারে। বিশ্বের মানুষকে সেকথা ভগবদ্গীতায় জানিয়েছেন সকলের পরম সুহৃদ ভগবান শ্রীকৃষ্ণ।


Subscribe For Latest Information






Comments

This Blog is protected by DMCA.com

Subscribe

Enter your email address:

Delivered by FeedBurner

Popular Posts

Email Subscription

Enter your email address:

Delivered by FeedBurner

EMAIL SUBSCRIPTION