প্রকৃতির দ্বারা ঈশ্বরের তৈরি ক্ষুদ্রতম বিমান || Page-105

 প্রকৃতির দ্বারা ঈশ্বরের তৈরি ক্ষুদ্রতম বিমান



এয়ারােডাইনামিস্ এবং উড্ডয়নবিদ্যা কেবল মানুষেরই করায়ত্ত নয়; বিমান তৈরী লক্ষ লক্ষ প্রজাতির জীবের কাছে জলের মত সহজ’ । কি দক্ষতায় পাখীগুলি—এমনকি চড়াই, টুনটুনি, হামিং বার্ড ওড়ে, তা বিশ্বের যেকোন বিমান সংস্থাকে লজ্জা দেয়। এমনকি একটি মাছিও যে দেহ-বিমানটি ব্যবহার করে, তা সেকেন্ডের ভগ্নাংশের মধ্যে ১৮০ ডিগ্রী বাঁক নিতে পারে পৃথিবীর কোন বিমান এমন, করতে গেলে টুকরাে টুকরাে হয়ে ভেঙে পড়বে। 



বিমান বিশেষজ্ঞরা কোটি কোটি ডলার খরচ করে বিশেষ টানেল ও অ্যাপারাটাস বানিয়ে মাছির ওড়ার কৌশল পর্যবেক্ষণ করেছেন, হাইস্পীড ক্যামেরায়।

ভিডিও তৈরী করে তা দেখে বােঝার চেষ্টা করেছেন। তবে ঐরকম ফ্লাইং মেশিন তৈরী তাদের আয়ত্তের বাইরে। অথচ এমন হাইটেক বিমান – মাছি, পাখি, -এসব নাকি নির্বোধ ঘটনাচক্রের ফল নাস্তিক বিবর্তন বাদী বিজ্ঞানী  মনেকরেন ।। বিবর্তন বাদিমনে করেন ওরা  সব আপনাথেকে হয়েছে ,এর কোনো ডিজাইনার নেই,এটা কখনো মানা  যায়না ,এমনকি একটি মোমের পুতুল ও আপনা থেকে তৈরি হয় না ওকে কেউনা কেউ তৈরি করে ,ওর জন্য একজন ডিজাইনারের প্রয়োজন হয় ,আপনা থেকে হওয়া অসম্ভব। 


Click Here >>>Subscribe






Comments

Email Subscription

Enter your email address:

Delivered by FeedBurner