Page

Follow

ময়ূরপুচ্ছ এক নান্দনিক সৌন্দর্য-সৃষ্টির রহস্য। অত্যন্ত জটিল আলােক বিজ্ঞানের প্রযুক্তি || Page-103

  ময়ূরপুচ্ছ এক নান্দনিক সৌন্দর্য-সৃষ্টির রহস্য।

অত্যন্ত জটিল আলােক বিজ্ঞানের প্রযুক্তি 



ভগবান শ্রীকৃষ্ণ শিখিপিচ্ছ মৌলি, ময়ূরপুচ্ছ দিয়ে তিনি শােভিত করেন তার উষ্ণীষ, শিরােদেশ – শিখিপুচ্ছ তাঁর শিরােভূষণ। ময়ুরপুচ্ছের রামধনু রঙের বাহারী বর্ণালী শিল্পী - কবি সহ সকলকে বিস্মিত করে। ময়ূর পুচ্ছের চোখের মতাে বিচিত্র রঙ -বিন্যাস থেকে যে রঙীন ও শৈল্পিক বর্ণচ্ছটা বেরােয়, বিজ্ঞানীরা তার রহস্য জানার জন্য গবেষণা করছেন। আধুনিকতম প্রযুক্তিজ্ঞান প্রয়ােগ করেও ঐরকম বিস্ময়কর শিল্প সুষমাময় রঙ-বাহার, ডিজাইন সৃষ্টি সম্ভব নয়। 



চীনা বিজ্ঞানীরা এ বিষয়ে বিস্তর গবেষণা করে এক অতি সূক্ষ্ম সিস্টেম (delicate mechanism) এর সন্ধান পেয়েছেন। চীনের ফুড়ান ইউনিভার্সিটির পদার্থবিদ জিয়ান জি এবং তার সহযােগীরা গবেষণায় দেখেছেন যে ময়ূরপুচ্ছের অতিক্ষুদ্র আণুবীক্ষণিক রােমরাজি ভিন্ন ভিন্ন তরঙ্গ দৈর্ঘ্য বা ওয়েভলেংথের আলাে শােষণ ও প্রতিফলন করে।


 প্রসিডিংস অব দি ন্যাশনাল অ্যাকাডেমী অব সায়েন্সেস’ নামক জার্নালে প্রকাশিত তাদের গবেষণা-নিবন্ধে তারা জানিয়েছেন, ময়ূর পালকের উজ্জ্বল রঙবাহার পিগমেন্ট বা রঞ্জক থেকে সৃষ্টি হয় না, পালকে এক ধরনের ক্ষুদ্র দ্বিমাত্রিক (two-dimensional) ক্রিস্টালের মতাে গঠন কাঠামাে থেকে বিকশিত হয় এই অনুপম বর্ণালি রঙচ্ছটা, নিখুঁত শিল্প।।


বিজ্ঞানী জিয়ান জি ও তার সহযােগীরা শক্তিশালী ইলেকট্রন মাইক্রোস্কোপের সাহায্যে সবুজাভ পুরুষ ময়ূরের (Pavo muticus) পালকের অতি ক্ষুদ্র রােম (micro hairs) পরীক্ষা করেন। এগুলি মানুষের চুলের চেয়ে কয়েকশাে গুণ বেশি সরু। এগুলি পালকের কেন্দ্রীয় স্টেমের গিট বা বার্ব থেকে বেরিয়েছে। মাইক্রোস্কোপে তারা এক ল্যাটিস ডিজাইনের জ্যামিতিকবিন্যাস দেখতে পান। সেখানে মেলানিন ও কেরাটিনের তৈরী রডগুচ্ছ রয়েছে। এই দ্বিমাত্রিক কাঠামােগুলি আণুবীক্ষণিক রােমের উপর একটির পিছনে আরেকটি নিখুঁত বিন্যাসে সজ্জিত। 



আরাে কিছু অপটিক্যাল পরীক্ষা ও পর্যবেক্ষণ করে তাঁরা দেখেন যে ঐ ফোটোনিক ক্রিস্টালগুলির দুটির মধ্যে যে ব্যবধান স্থান বা স্পেস রয়েছে, তার পরিমাণের তারতম্য এবং এদের মাত্রা ও গঠনের তারতম্যের ফলে।

আলাে বিভিন্ন কৌণিকতায় প্রতিফলিত হয়ে ভিন্ন ভিন্ন রঙে বিচ্ছুরিত হচ্ছে। অর্থাৎ ঐ ক্রিস্টালগুলির সূক্ষ্ম ও সুনির্দিষ্ট ল্যাটিস বিন্যাসই তৈরী করছে নির্দিষ্ট শৈল্পিক নক্শার বর্ণালী চিত্র। ঐ গবেষণাপত্রে বিস্মিত জি লেখেন “The male peacock tait contaivaS spectacular beauty because of the brilliant, iridescent, diversified, colourful eye patterns. When I watched, I was amazed by the stunning beauty of the feathers.”


ময়ূরের পালক তাই এক অত্যন্ত সুনির্দিষ্টভাবে নিয়ন্ত্রিত ডিজাইন (a very specially regulated design)-এর নিদর্শন: ক্রিস্টালগুলি মধ্যবর্তী স্পেস-অ্যাডজাস্টমেন্ট সামান্য এদিক-ওদিক হলে রঙ যাবে গুলিয়ে, পাওয়া যাবে না রামধনুকে লজ্জা দেওয়া বর্ণময় দীপ্তিচ্ছটা।


মানুষ, এমনকি বিজ্ঞানীরও মাথায় চুল পেকে গেলে দেহে মেলানিন তৈরী করে তা কালাে করার ক্ষমতা থাকে না তাঁর। ময়ুরের  এই অত্যন্ত বুদ্ধিমত্তাপূর্ণ, জমকালাে, ইন্সপিরেশনাল আর্ট-এর উদ্ভব হলাে কিভাবে?



 ময়ুর কি আগে কাকের মতােই ছিল, পরে এই কালারিং ইনস্টমেন্টস সে তার দেহে নিজে যােগ করেছে? 


তারা নিজেরাই কি ডিজাইনিং করে ঐ ফোটোনিক ক্রিস্টালগুলির মধ্যবর্তী স্পেসগুলি রামধনু বর্ণালী ফোটাতে নিখুঁত ভাবে নির্ধারণ করেছে?


নাহলে কি পরিবেশের সংগে সংঘর্ষ করতে করতে ঐরকম সৌন্দর্যের পরম উৎকর্ষ আপনা থেকে সন্নিবেশিত হয়েছে ময়ূরের দেহে? 


একটি ময়ূরের অংকিত ছবি দেখলে আমরা বুঝতে পারি তার পিছনে একজন শিল্পী আছে। আসল ময়ূরটি কি শিল্পীর শিল্পচেতনা ছাড়াই উদ্ভূত?


অক্সফোর্ড ইউনিভাসির্টির একজন জুওলজিস্ট ও কালার এক্সপার্ট আন্ড্রু  পার্কাব বলেন যে ময়ূরপালকের এই সূক্ষ্ম ক্রিস্টাল-কাঠামাের মেকানিজমের এই প্রযুক্তিকে শিল্প বাণিজ্য ক্ষেত্রে প্রয়ােগ করা যেতে পারে, বিশেষ টেলিকমিউনিকেশন ইকুইপমেন্টসে আলােকে চ্যানেলাইজ করতে অথবা নতুন ধরনের ক্ষুদ্র কমপিউটার মাইক্রোচিপস তৈরী করতে ব্যবহার করা যেতে পারে। তার এই উক্তিতে আমরা বুঝতে পারি ময়ুরপালকে আলােক বিন্যাসের প্রযুক্তি কত সূক্ষ্ম। ঐ প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে মাইক্রোচিপস তৈরী হলে সেটি হবে এক বৈজ্ঞানিক বুদ্ধিমত্তার ফসল, আর সত্যিকার পালকটির সৃষ্টি আপনা থেকে? এই দ্বৈতবিচার যুক্তিসিদ্ধ না বিশ্বাস প্রসূত, নির্ধারণের ভার পাঠকের।।




Click Here >>>Subscribe






Comments

y3

yX Media - Monetize your website traffic with us Monetize your website traffic with yX Media Monetize your website traffic with yX Media

This Blog is protected by DMCA.com

Subscribe

Enter your email address:

Delivered by FeedBurner

Email Subscription

Enter your email address:

Delivered by FeedBurner

sharethis-inline