Follow

ভগবানের সংগে আমাদের সম্পর্ক PAGE-234

  ভগবানের সংগে আমাদের সম্পর্ক 

PAGE-234



প্রতিটি জীব ভগবানের অবিচ্ছেদ্য অংশ । সুতরাং প্রত্যেক জীবের সংগে ভগবানের নিত্যকালের অবিচ্ছেদ্য সম্বন্ধ রয়েছে। শ্রীকৃষ্ণ বলেন, তিনি সুহৃদং সর্বভূতানাং – সকল জীবের পরম সুহৃদ। জীব শ্রীকৃষ্ণের অংশ, তাই তার সেবক, নিত্য দাস। সকলে তার সেবক, এবং ভগবানের সংগে পাঁচটি দিব্য সম্পর্কে সম্পর্কিত হয়ে জীব তার সেবা করতে পারে। যারা এইভাবে তার সেবায় নিরত, সেই সমস্ত জীব হচ্ছে তাঁর ভক্ত। চিন্ময় জগতে তিনি তার এই রকম অগণিত শুদ্ধ ভক্ত-পরিবৃত। তারা সকলেই ভগবানের সংগে পাঁচটি দিব্য সম্পর্কের কোন না কোনটির দ্বারা সম্পর্কিত।



১। শান্ত – যারা তাঁর  প্রতি সাধারণভাবে অনুরক্ত, যেমন বৃক্ষ, গাভী ইত্যাদি। 

২। দাস্য – যারা তাঁর  সেবক, আদেশ পালনে সর্বদা তৎপর।

৩। সখ্য – যারা তাঁর সখা।।

৪। বাৎসল্য – যারা তাকে সন্তানের মতাে দেখেন, তার প্রতি স্নেহাবিষ্ট।।

৫.মাধুর্য – যারা তাঁকে দয়িত প্রেমাস্পদ হিসাবে তার সেবা করেন।।

ভগবান একজন ব্যক্তি এবং জীব তার সংগে বিভিন্ন সম্পর্কে সম্পর্কিত হতে পারে। অর্জুন ছিলেন শ্রীকৃষ্ণের সখা। আমরা ভগবানের সংগে আমাদের নিত্য সম্বন্ধের কথা ভুলে গিয়েছি। কিন্তু অন্তর্নিহিত ভাবে সেই সম্বন্ধ সুপ্ত অবস্থায় রয়েছে। এই জগতে আমরা জড় দেহধারী জীবের সংগে যে জাগতিক সম্পর্ক গড়ে তুলি —পিতা, মাতা, বন্ধু, ভ্রাতা, পুত্র,। স্বামী-স্ত্রী-এ সবই ভগবানের সংগে আমাদের নিত্য সম্বন্ধের, অস্থায়ী, অনিত্য হেয় প্রতিফলন।। কোটি কোটি জীব সত্তার প্রত্যেকে নিত্যকাল ধরে শ্রীকৃষ্ণের সংগে এক বিশেষ সম্পর্কে সম্পর্কিত । ভক্তিযােগের মাধ্যমে জীব যখন মায়ামুক্ত হয়, তখন তার সেই নিত্য স্বরূপ পুনর্জাগরিত হয়, সেই স্তরকে বলা হয় স্বরূপসিদ্ধি। তখন জীব চিজ্জগতে ফিরে গিয়ে শ্রীকৃষ্ণের সংগে প্রত্যক্ষভাবে প্রীতির আদান প্রদান করে দিব্যানন্দময় স্থিতি লাভ করে।


Subscribe For Latest Information






Comments

This Blog is protected by DMCA.com

Subscribe

Enter your email address:

Delivered by FeedBurner

Popular Posts

Email Subscription

Enter your email address:

Delivered by FeedBurner

EMAIL SUBSCRIPTION